কালীগঞ্জে ছাত্রী ধর্ষণ, আসামিদের আদালতে ধর্ষণের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি 

  • ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:
  • মঙ্গলবার, ২০ জুলাই ২০২১ ১২:৫২:০০

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় জোরপূর্বক পাটক্ষেতে নিয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১১) ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষনকারীরা ঝিনাইদহ আদালতে শিকার করেছে। 

ধর্ষনকারীরা মধুগঞ্জ বাজারের ঢাকালেপাড়া এলকার ভাড়টিয়া আব্দুস সাত্তার ওরফে সাগর ও অন্য দুই জন বলিদাপাড়া এলাকার বাসিন্দা আমির আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৬) ও সিরাজুল ইসলাম এর ছেলে মতিয়ার রহমান (৩৭)। 

এ ঘটনায় শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে কালীগঞ্জ থানায় অজ্ঞাতনামা ৬ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন ভিকটিমের মা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে ওষুধ ও আম কেনার জন্য বাজারে আসে। সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত বাড়িতে ফিরে না আসলে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি শুরু করে। অবশেষে রাত ৯ টার দিকে কালীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। 

এরপর রাত ২ টার দিকে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ মেয়েকে বড় রায়গ্রাম এলাকা থেকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ৬ জন জড়িত বলেও জানান তিনি। 

কালীগঞ্জ থানার তদন্ত ওসি মো. মতলেবুর রহমান জানান, ভিকটিমের মা বাদী হয়ে শনিবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। 

এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান আসামিদ্বয় আদালতে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য